আজ বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮ ইং

সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম তুলে ধরতে বেতারের ভূমিকা অনন্য: আব্দুল আহাদ

 প্রকাশিত : ২০১৮-০৫-১৬ ১৯:৫০:৩২

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : বুধবার, ১৬ মে ২০১৮ : সিলেট জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল আহাদ বলেছেন- সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম তুলে ধরতে বেতারের ভূমিকা অনন্য। প্রধানমন্ত্রীর ১০টি বিশেষ উদ্যোগ আমাদের জীবনমান উন্নয়নের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

তিনি আরো বলেন, সকল মানুষের কাছে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রার কথা জানান দিতে বেতার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। মানুষের দুর্যোগ দুঃসময়ে বেতারের অবদান সব সময়ই প্রশংসার দাবী রাখে। তাই বেতার আজও আছে চিরদিন থাকবে। প্রয়োজন কখন ফুরাবেনা।

মঙ্গলবার বিকেলে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে বাংলাদেশ বেতার সিলেট কেন্দ্রের উদ্যোগে শিশু ও নারী উন্নয়নে সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রম প্রকল্পের আওতায় বেতার শ্রোতা আনন্দ মেলা বন্ধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

কেন্দ্রের আঞ্চলক পরিচালক মোঃ ফখরুল আলমের সভাপতিত্বে ও সহকারী পরিচালক মোঃ জাকিরুল ইসলাম এর স্বাগত বক্তব্যের মধ্যদিয়ে সুচিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সিলেট কেন্দ্রের আঞ্চলক প্রকৌশলী মানোয়ার হোসেন খান, আঞ্চলিক বার্তা নিয়ন্ত্রক দবির আল কাদের, উপ-আঞ্চলিক পরিচালক আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তারিক, মোঃ হাবিবুর রহমান।

সভাপতির বক্তব্যে আঞ্চলিক পরিচালক মোঃ ফখরুল আলম বলেন, বেতার শ্রোতা আনন্দ মেলা বন্ধন একটি মাইল ফলক হিসেবে কাজ করবে। বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশ হয়ে গেছে। দেশের কোন মানুষ না খেয়ে থাকবেনা । মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগ  বাস্তবায়ন করতে হবে। তাহলেই আমদের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য পুরণ হবে। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সিলেট কেন্দ্রের উপ-পরিচালক মোঃ আব্দুল হক,  সহকারী পরিচালক মোঃ জোনায়েদ হোসেন। অনুষ্ঠান প্রযোজনা করেন  প্রদীপ চন্দ্র দাস। বক্তব্য রাখেন সাউথ এশিয়া রেডিও ক্লাবের চেয়ারম্যান দিদারুল ইকবাল, দোতরা বেতার শ্রোতা ক্লাবের সভাপতি ডিকে জয়ন্ত, ইলেভেন্স  বেতার শ্রোতা ক্লাবের সভাপতি এফ এ মান্নান। আলোচনা পর্ব শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। এতে গান পরিবেশন করেন সিলেটের সুনাম ধন্য শিল্পী বৃন্দ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সৈয়দ সাইমুম আঞ্জুম ইভান।
উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/প্রেবি/এমওআর

আপনার মন্তব্য

Developed By    IT Lab Solutions Ltd.

Helpline - +88 018 4248 5222