আজ বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮ ইং

রাজনগরে মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে একমাস পর ডাকাত গ্রেফতার: অস্ত্র উদ্ধার

 প্রকাশিত : ২০১৮-০৫-০৪ ২২:১৭:০৫

রাজনগর সংবাদদাতা : শুক্রবার, ০৪ মে ২০১৮: ডাকাতির সময় লুট করা মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে এক ডাকাতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় লুট করা লাইসেন্সকৃত একনলা বন্দুকও উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার (৪ মে) ভোর ৫টার দিকে রাজনগর থানা পুলিশের সহায়তায় মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার উত্তর ঘরগাঁও গ্রামে অভিযান চালিয়ে ওই ডাকাতকে গ্রেফতার করে মৌলভীবাজার মডেল থানার পুলিশ।
পুলিশ জানায়- চলতি বছরের ২৭ মার্চ দিবাগত রাতে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার উলুয়াইল গ্রামের আব্দুল মুকিতের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতরা নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, ৩টি মোবাইল ফোন ও ১টি লাইসেন্স করা একনলা বন্দুক লুট করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মৌলভীবাজার মডেল থানায় মামলা হলে পুলিশ লুট করা মোবাইল ফোনের আইএমইআই নাম্বারের মাধ্যমে ট্র্যাক করে। একমাস ফোন বন্ধ থাকার পর গত ৪-৫ দিন আগে একটি ফোন ব্যবহার করা শুরু করেন রাজনগর উপজেলার উত্তর ঘরগাঁও গ্রামের মসিদ মিয়ার জামাতা বাবুল মিয়া। বাবুলকে ধরতে শুক্রবার ভোরে রাজনগর থানার সহায়তা নিয়ে উত্তর ঘরগাঁও এলাকায় অভিযান চালান মৌলভীবাজার মডেল থানার এসআই গিয়াস উদ্দিন খান। এসময় বাবুলকে ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করলে মোবাইল ফোনটি তার শ্যালক সুরুজ আলী (২৩) তাকে দিয়েছেন বলে জানান। পরে একই বাড়ির পৃথক একটি ঘর থেকে সুরুজ আলীকে আটক করা হয়। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে সুরুজ আলী ডাকাতির সাথে সম্পৃক্ত থাকার কথা স্বীকার করে। স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে তার বিছানার তোষকের নিচ থেকে কালো কাপড় দিয়ে বাঁধা লুট হওয়া বন্দুকটি উদ্ধার করে মৌলভীবাজার মডেল থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।
মৌলভীবাজার মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) গিয়াস উদ্দিন খান বলেন- ডাকাতির পরপর আমরা ডাকাত সনাক্তে কাজ শুরু করি। লুট হওয়া মোবাইল ফোনের আইএমইআই দিয়ে বাবুল মিয়াকে ধরলে সে সুরুজের কাছ থেকে ফোনটি পেয়েছে বলে জানায়। পরে সুরুজকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে লুট হওয়া বন্দুক উদ্ধার করা হয়। বাবুল মিয়া ডাকাতির ঘটনায় সম্পৃক্ত নয়।
উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/এফএইচ/এমওআর

আপনার মন্তব্য

Developed By    IT Lab Solutions Ltd.

Helpline - +88 018 4248 5222