আজ রবিবার, ২০ মে ২০১৮ ইং

দাবি যাচাইয়ের আশ্বাসে ৭ মে পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত

 প্রকাশিত : ২০১৮-০৪-০৯ ১৯:০৪:১৯

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : সোমবার, ০৯ এপ্রিল ২০১৮: সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবি সরকার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এই আশ্বাসে ৭ মে পর্যন্ত কর্মসূচি স্থগিত করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (৯ এপ্রিল) বিকেলে সচিবালয়ে ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে সরকারের প্রতিনিধি ও আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি দলের বৈঠক শেষে দু’পক্ষ এ সিদ্ধান্ত জানায়।

সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী ৭ মে পর্যন্ত সরকার কোটা ব্যবস্থার বিভিন্ন বিষয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখবে। এরপর এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এ পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা তাদের আন্দোলন স্থগিত করেছে।

তিনি বলেন, যারা আন্দোলন চলাকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্যের বাসভবনে হামলা চালিয়েছে ভিডিও ফুটেজ দেখে তারে বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে বলেছি-এ ঘটনায় যাতে কোনো নিরীহ শিক্ষার্থী নির্যাতনের শিকার না হয় তা দেখতে।

‘আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধিরা জানিয়েছেন-তারা কোনোভাবেই ঢাবি উপাচার্যের বাসভবন ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িত নয়।  বহিরাগত কেউ অনুপ্রবেশ করে এ হামলা চালিয়েছে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলন চলাকালে অনেককে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে যারা ইনোসেন্ট (নির্দোষ) তাদের ছেড়ে দেওয়া হবে।

‘আর যারা আহত হয়েছেন তাদের চিকিৎসার জন্যও সরকার কোনো কার্পণ্য করবে না। আমরা তাদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করবো।’

এর আগে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে সচিবালয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের নিয়ে বসেন ওবায়দুল কাদের। বৈঠকে অন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, মাহবুব-উল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, আওয়ামী লীগ মৃণাল কান্তি দাশ প্রমুখ।

কোটা সংস্কারসহ পাঁচ দফা দাবিতে রোববার (৮ এপ্রিল) দেশজুড়ে কর্মসূচি পালন করে শিক্ষার্থীরা। পরে তারা রাজধানীর শাহবাগে অবস্থান নেন। কিন্তু সেখানে রাতে তাদের ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।

এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আন্দোলনরতদের ওপর টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। এ সময় কয়েকজনকে আটকও করা হয়।

এর প্রতিবাদে সোমবার সকাল থেকে দেশজুড়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন শিক্ষার্থীরা। বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটেরও হুঁশিয়ারি দেন তারা।

সোমবার বিকেলে আন্দোলনের এক পর্যায়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) ঘিরে চারটি রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা।

এতে টিএসসি থেকে শাহবাগ, দোয়েল চত্বর, ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল ও নীলক্ষেত-নিউমার্কেটমুখী চারটি রাস্তাতেই যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

শিক্ষার্থীদের সরিয়ে দিতে থেমে থেমে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। এ সময় সড়কে টায়ার ও বাঁশ জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করতে দেখা যায়। আলোচনার আহ্বান জানানোর পরও বিকেলে ঢাবি ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছেন আন্দোলনকারীরা।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/এমওআর

আপনার মন্তব্য

Developed By    IT Lab Solutions Ltd.

Helpline - +88 018 4248 5222