আজ রবিবার, ২০ মে ২০১৮ ইং

এবার আপন জুয়েলার্স মালিক দিলদারের বিরুদ্ধেও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

 প্রকাশিত : ২০১৭-১০-২৪ ১০:৫৯:৪৭

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : মঙ্গলবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৭: ঢাকার বনানীতে দুই ছাত্রী ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সাফাত আহমেদের বাবা আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের বিরুদ্ধে মুদ্রা পাচার ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের দুই মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে আদালত।

হাই কোর্টের দেওয়া জামিনের মেয়াদ শেষে নিয়ম অনুযায়ী আদালতে হাজির না হওয়ায় ঢাকার মহানগর হাকিম নূর নবী গতকাল সোমবার পরোয়ানা জারির এ আদেশ দেন বলে জানা গেছে।

আদালত শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরকে ওই আদেশ কার্যকর করার নির্দেশ দিয়েছে বলে অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মইনুল খান জানান।

গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, “আমরা আদালতের আদেশ বাস্তবায়নে যা করা প্রয়োজন তার সবটুকু করব।”

এর আগে রোববার আপনের অপর দুই মালিক দিলদারের ভাই গুলজার আহমেদ ও আজাদ আহমেদের বিরুদ্ধেও গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন মহানগর হাকিম নূরুন্নাহার ইয়াসমিন।

বনানীর হোটেলে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গত মে মাসে দিলদারের ছেলে সাফাতের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর তার পরিবারের মালিকানাধীন আপন জুয়েলার্সের সোনা চোরাচালানের অভিযোগের বিষয়ে তদন্তে নামে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তর।

ওই মাসের শেষ দিকে আপনের বিভিন্ন বিক্রয় কেন্দ্র থেকে ১৫ দশমিক ৩ মণ সোনা এবং ৭ হাজার ৩৬৯টি হীরার অলঙ্কার জব্দ করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে পাঠায় শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তর।

শুল্ক ফাঁকি রোধে দায়িত্বরত এ সংস্থার ভাষ্য, মজুদ ওই গয়নার কোনো বৈধ কাগজপত্র আপন কর্তৃপক্ষ দেখাতে পারেনি।

অনুসন্ধান শেষে গত ১২ অগাস্ট দিলদার ও তার দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে মুদ্রা পাচারসহ বিভিন্ন অভিযোগে রাজধানীর গুলশান, ধানমণ্ডি, রমনা ও উত্তরা থানায় পাঁচটি মামলা করে শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তর।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, চোরাচালানের মাধ্যমে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে স্বর্ণালঙ্কার এনে এর অর্থ অবৈধভাবে বিদেশে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি অবৈধভাবে অর্জিত সম্পদের সঠিক পরিমাণ তারা আয়কর বিবরণীতে উল্লেখ করেনি।

এ দুই মামলায় ২২ অগাস্ট হাই কোর্টের একটি বেঞ্চ থেকে চার সপ্তাহের আগাম জামিন পান আপনের মালিক তিন ভাই।

ওই জামিনের মেয়াদ শেষে আরও এক মাস পেরিয়ে গেলেও আসামিরা নিয়ম অনুযায়ী নিম্ন আদালতে হাজির না হয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে সময়ের আবেদন করায় দুই বিচারক তা নাকচ করে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন। 

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/ডেস্ক/এমএস

আপনার মন্তব্য

Developed By    IT Lab Solutions Ltd.

Helpline - +88 018 4248 5222