আজ রবিবার, ২০ মে ২০১৮ ইং

নববর্ষের উৎসবে রঙিন মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি

 প্রকাশিত : ২০১৮-০৪-১৫ ১৫:০৬:৪১

উত্তরপূর্ব ডেস্ক : রবিবার, ১৫ এপ্রিল ২০১৮: নান্দনিক আয়োজনে বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ বরণ করেছে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি পরিবার। নাচ, গান, কৌতুক, মেলা, পান্তা ইলিশ সবই ছিল সে আয়োজনে।

শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বর্ষবরণ উৎসবে রঙিন ছিল মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাস। সিলেট শহরতলির বটেশ্বরস্থ স্থায়ী ক্যাম্পাসে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারি সবার মিলনমেলা বসেছিল নববর্ষের উৎসবে।

বাংলা নববর্ষ বরণ উপলক্ষে গত কয়েকদিন ধরে সাজ সাজ রব বিরাজ করছিল মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে। চলছিল নানা প্রস্তুতি। সেই সাজ সাজ রবের প্রতিফলন দেখা গেল শনিবার বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন। এদিন সকাল থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসে ভিড় করতে থাকেন সবাই। একের পর এক চলতে থাকে বিভিন্ন অনুষ্ঠান। এসব অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত¡াবধনে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (প্রশাসন) তারেক ইসলাম।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানমালার মধ্যে ছিল গান, স্ট্যান্ডআপ কমেডি, গীতিনাট্য, পুঁথিপাঠ, বৃষ্টিবন্দনা, নাটক, নৃত্য, প্রভৃতি। বৈশাখী মেলায় ছিল বিভিন্ন রকমের স্টল। ঐতিহ্যের ঘ্রাণ, আইও আইও চটপটি হাউজ, জাদুর বাক্স, টুফা, বাঙালি পিঠা ঘর, পান্তুয়া, হরেক রকম প্রভৃতি বাহারি নামের স্টলে দিনভরই ছিল উপচেপড়া ভিড়। এছাড়া এমইউ স্পোর্টস ক্লাবের আয়োজনে লাটিম খেলা, মার্বেল দৌড়, মোরগ লড়াই, সাপের খেলা প্রভৃতি খেলাগুলোও ছিল আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে। নাচ, গান প্রভৃতিতে শুধু বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাই নয়, শিক্ষকরাও সমানতালে অংশগ্রহণ করেন।

মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির এই বৈশাখী আয়োজন উপভোগ করেন ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক শিব প্রসাদ সেন, রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ফজলুর রব তানভীর, আইন ও বিচার বিভাগের ডিন অধ্যাপক ড. রবিউল হোসেন, ব্যবসা ও অর্থনীতি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. তাহের বিল্লাল খলিফা, সহকারি রেজিস্ট্রার লোকমান আহমদ চৌধুরী, সহকারি প্রক্টর এডভোকেট মো. আব্বাছ উদ্দিন প্রমুখ উপভোগ করেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের প্রধান, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারি, শিক্ষার্থী সবাই উপস্থিত ছিলেন। অনেকেই স্বপরিবারে বৈশাখী আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন।

উত্তরপূর্ব২৪ডটকম/প্রেবি/এমওআর

আপনার মন্তব্য

Sports update - Sports Action

Developed By    IT Lab Solutions Ltd.

Helpline - +88 018 4248 5222